পাকিস্তানকে পঙ্গপালের হাত থেকে রক্ষা করছে ‘মুরগি বাহিনী’!

পঙ্গপালের হামলায় বিপর্যস্ত পাকিস্তান। ফসলের চরম ক্ষতির পাশাপাশি বাসা-বাড়িতেও ঢুকে পড়ছে এই রাক্ষুসে পতঙ্গের ঝাঁক। শত চেষ্টা সত্ত্বেও কিছুতেই দমন করা যাচ্ছে না। এ অবস্থায় এই রাক্ষুসে পতঙ্গের ঝাঁক রুখতে ‘বিশেষ বাহিনী’ প্রস্তুত করছে পাকিস্তান। নাহ, কোনো সামরিক বাহিনী নয়, পাকিস্তানের ভরসা ‘মুরগি বাহিনী’!

শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। পাকিস্তানে মুরগির খাবারে পরিণত হয়েছে পঙ্গপাল। হাজার হাজার মুরগির জন্য সুস্বাদু খাদ্যে পরিণত হয়েছে রাক্ষুসে এই পোকা।

বিশ্লেষকদের মতে, এর ফলে কিছুটা হলেও পঙ্গপালের বংশবৃদ্ধি কমেছে। এ কারণে পাঞ্জাব প্রদেশে একটি পাইলট প্রকল্প শুরু করার নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, যার আওতায় পঙ্গপাল জমা করে সরকারের হাতে তুলে দিলে নগদ অর্থ দেওয়া হবে। আর জমা হওয়া পোকাগুলো শুকিয়ে মুরগির খাদ্যে পরিণত করা হবে। এতে লাভবান হবে হাজার হাজার পোলট্রি ব্যবসায়ী।

এই পরিকল্পনা তৈরি করেছেন পাকিস্তানের খাদ্যমন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা মহম্মদ খুরশিদ ও প্রাণীবিদ জহর আলি। এর আগে যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনে খাদ্য সংকটের মোকাবেলা করেত জনগণকে পঙ্গপাল খাওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল সে দেশের সরকার।

উল্লেখ্য, এর আগে পঙ্গপালের আক্রমণ থেকে বাঁচতে বন্ধু চীনের সাহায্য চেয়েছিল পাকিস্তান। সেই ডাকে সাড়া দিয়ে পঙ্গপাল ধ্বংস করতে পাকিস্তানকে ১ লাখ বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হাঁস উপহার দিয়েছিল বেইজিং। তবে সেই হংস বাহিনী পঙ্গপাল দমনে কতটা সফল হয়েছিল সেটা অবশ্য জানা যায়নি।

Sharing is caring!