আয় রোজগার ছাড়া মানুষদেরকে ঈদ খরচ দেওয়ার ঘোষনা প্রধানমন্ত্রীর

করোনা পরিস্থিতিতে যাদের আয়-রোজগার নেই, ঈদের আগে তাদেরকে কিছু নগদ টাকা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

চলমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে আজ সোমবার (৪ মে) সকালে রংপুর বিভাগের আট জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে দেওয়া বক্তৃতায় এ তথ্য জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে যাদের আয়-রোজগার নেই, ঈদের আগে তাদেরকে কিছু নগদ টাকা দেওয়া হবে। তিনি বলেন, সারা দেশে ৫০ লাখ রেশন কার্ড চালু রয়েছে। এই কার্ড দেখিয়ে তারা ১০ টাকা কেজিতে চাল কিনতে পারছে। আরো ৫০ লাখ কার্ড আমরা করছি। ইতিমধ্যে তালিকাও হয়ে গেছে। এ ছাড়া আমাদের ব্যবসাবাণিজ্য সচল রাখতে ব্যবসায়ীদের ঋণের বিপরীতে সুদ স্থগিত করা হয়েছে। এর আগে অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে এক লাখ কোটি টাকার প্রণোদনারও ব্যবস্থা করা হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, মনে রাখতে কৃষি আমাদের বড় সম্পদ। আমাদের জমি উর্বর। সুতরাং এক ইঞ্চি জমিও যেন অনাবাদি না থাকে। আমি কৃষি মন্ত্রীকে বলেছি। সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছি খালি জায়গায় আবাদের ব্যবস্থা করার জন্য। মাছ ডিম দুধ উৎপাদনও বাড়াতে হবে। তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতির পর বিশ্বের অনেক জায়গায় দুর্ভিক্ষ দেখা দিতে পারে। আমরা নিজের দেশকে রক্ষা করব। আর অন্য দেশকেও সাহায্য করতে হবে। সেজন্য আমাদের উৎপাদন বাড়াতে কৃষি খাতে পাঁচ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা দিচ্ছি। ৯ হাজার ৫০০ কোটি টাকার ভর্তুকিও দিচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ১০ লাখ মেট্রিকটনে খাদ্যশস্য আমরা সংগ্রহ করব। যাতে বাংলাদেশে আর খাদ্যশস্যের অভাব না হতে পারে। তিনি বলেন, আমরা দেশটাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সেই স্বপ্ন ছিল। কাজেই সেই লক্ষ্য নিয়েই আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। পূর্বে আমরা অনেক বিপদ মোকাবেলা করেছি। এবার করোনার বিরুদ্ধেও আমরা জয়ী হবো

Sharing is caring!