বস্তিতে মাথায় করে ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিল সেনাবাহিনী

রাজধানীর ভাষানটেক এলাকার ছয়টি বস্তিতে প্রায় ৭ হাজার কর্মহীন দরিদ্র পরিবারের মাঝে মাথায় করে ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিয়েছে সেনাবাহিনীর ৮৬ স্বতন্ত্র সিগন্যাল ব্রিগেড। বস্তিগুলো হল- ভাষানটেক ১নং বস্তি, ২নং বস্তি, ৪নং বস্তি, ৪নং অফিসটেক বস্তি, বেনারসি পল্লী বস্তি ও রূপসী বাংলা বস্তি।

সর্বশেষ রোববার রূপসী বাংলা বস্তিতে ৯৫০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণের মাধ্যমে সম্পন্ন হয় ভাষানটেকের ৬ বস্তিতে ত্রাণ বিতরণের কার্যক্রম।

জানা গেছে, সেনাবাহিনীর সদস্যরা নিজেরা কম খেয়ে ও রেশন বাঁচিয়ে প্রথমে ওই এলাকায় ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেন। পরবর্তীতে বেসরকারি সংস্থা বিদ্যানন্দন ফাউন্ডেশন, এফসিআই লিমিটেড এবং অন্যান্য সেনাসদস্যদের ব্যক্তিগত উদ্যোগে সেনাবাহিনীর ত্রাণ তহবিলে সহায়তা করলে পুরো এলাকাকে ত্রাণের আওতায় আনা সম্ভব হয়।

জনসামাগম এড়াতে মাইকে সাবইকে ঘরে অবস্থানের জন্য অনুরোধ জানিয়ে নিজেরাই মাথায় করে ত্রাণ সামগ্রী ঘরে ঘরে পৌঁছে দেন।

ওই এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা জানান, লাইনে দাঁড়ানো ছাড়া ঘরে বসে খাদ্যসামগ্রী পাবেন এমনটা আশাই করেননি তারা। সুষ্ঠুভাবে ত্রাণ পাওয়ায় তারা সেনাবাহিনীকে ধন্যবাদ জানান।

এর আগে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ওই এলাকায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অসহায় মানুষের মাঝে হ্যান্ড সেনিটাইজার, মাস্ক, গ্লাভসসহ ইত্যাদি স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

সেনা সদস্যরা জানান, করোনাভাইরাস বিস্তার রোধে অন্যান্য কার্যক্রমের পাশাপাশি এমন খাদ্য সহায়তা অব্যাহত থাকবে।

এর আগে গত ২৫ মার্চ করোনাভাইরাসের কারণে সারাদেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণার পরপর মাঠে নামে সেনাবাহিনী। এর পর থেকেই সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত, লকডাউন ও কোয়ারেন্টিন বাজায় রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে তারা। পাশাপাশি অসহায় মানুষদের খাদ্য, ওষুধসহ নানা নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য দিয়ে সহায়তা করছে সুশৃঙ্খল এ বাহিনীটি।

Sharing is caring!