গার্মেন্টস শ্রমিকদের জন্য সুখবর, ইসলামি আন্দোলনের নেতাদের ৯ দফা দাবি

২৫ রমজানের মধ্যে পোশাক শ্রমিকের পাওনাসহ ঈদ বোনাস পরিশোধের আহ্বান জানিয়েছেন ইসলামী শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন।

শনিবার (৯ মে) রাজধানীর পুরানাপল্টনে আইএবি মিলনায়তনে গার্মেন্টস শ্রমিক আন্দোলন আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন এ আহ্বান জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলন লিখেত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাম্মদ হারুন অর রশিদ। সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নে জবাব দেন অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন। উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলনের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোশাররফ হোসেন খান। সংবাদ সম্মেলনে ৯ দফা দাবি পেশ করা হয়।

দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে :
১. গার্মেন্টস শ্রমিকদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির ও কাজের সমতা অর্জনের লক্ষ্যে ভালো খাবারের প্রয়োজন। এ জন্য রেশনিং কার্ড বরাদ্দ করতে হবে।

২. স্বাস্থ্য বিধি মোতাবেক শ্রমিকদের কাজের পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে।

৩. ২৫ রমজানের মধ্যে শ্রমিকের সকল পাওনাসহ ঈদ বোনাস দিতে হবে।

বিজ্ঞাপন

৪. করোনার কারণে বন্ধকালীন সময়ে সব গার্মেন্টস শ্রমিকদের শতভাগ বেতন দিতে হবে।

৫. গার্মেন্টস শিল্পের কোনো শ্রমিক ছাঁটাই করা যাবে না।

৬. গার্মেন্টস শিল্প লে-অফ করা যাবে না।

৭. গার্মেন্টস শ্রমিকদের জন্য স্বল্পমূল্যে বাসস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে।

৮. করোনা ভাইরাসের চিকিৎসাসহ সব ধরনের চিকিৎসাসেবা প্রদানে সব গার্মেন্টস জোন এবং ইপিজেডসমূহে বিশেষ চিকিৎসা কেন্দ্র গড়ে তুলে চিকিৎসা নিশ্চিত করতে হবে।

৯. সব গার্মেন্টেসে ইসলামী শ্রমনীতি বাস্তবায়ন করতে হবে। ইসলামী শ্রমনীতি এমন এক শ্রমনীতি- যাতে মালিক ও শ্রমিক উভয়ই লাভবান হয়।

Sharing is caring!