দৌলতদিয়া-শিমুলিয়া ঘাটে ঢাকামুখী যাত্রীদের ভিড়

ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে রোববার থেকে সীমিত আকারে দোকানপাট খুলছে। এ কারণে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ও মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ফেরিঘাটে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়ের সৃষ্টি হয়েছে।

শনিবার সকাল থেকে এই দুই ঘাটে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।

এছাড়া রোববার থেকে ঈদের কেনাকাটায় শপিংমল খোলার খবরে ঢাগাগামী যাত্রীরা হুমড়ি খেয়ে পড়েছেন দৌলতদিয়া ও শিমুলিয়াঘাটে।

সরেজমিন শনিবার দুপুরে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে গিয়ে দেখা যায়, মানিকগঞ্জ জেলার পাটুরিয়া ফেরিঘাট থেকে ছেড়ে আসা ফেরিতে উঠার জন্য দৌলতদিয়া ৫নং ফেরিঘাটের পল্টুনের উপর তিন শতাধিক যাত্রী অপেক্ষায় রয়েছে। ঘাটে ফেরি ভেড়ার সঙ্গে সঙ্গে সামাজিক দূরত্ব না মেনে গাদাগাদি করে ফেরিতে উঠছেন যাত্রীরা।

কুষ্টিয়া থেকে আসা যাত্রী আবেদ হোসেন বলেন, পোশাক কারখানা খোলায় অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে ব্যাটারিচালিত অটোতে করে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে এসেছি। তাছাড়া কয়েকবার পথে আটকে থাকায় আমাদের ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে।

বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ৫নং ঘাট শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত টিএস নজিবুল বাসার বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে অর্থনীতির কথা চিন্তা করে দেশ এখন অনেকটা স্বাভাবিকের পথে যাচ্ছে। দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে সীমিত আকারে বড় ২টি ও ছোট ৪টি ফেরি চলাচল করছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডব্লিউটিসির) দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক আবু আব্দুল্লাহ রনি যুগান্তরকে বলেন, ইতিমধ্যে দৌলতদিয়া ঘাটে যাত্রীদের পাশাপাশি যানবাহনেরও চাপ বৃদ্ধি পেয়েছে। যে কারণে একটু ভিড় বেশি হচ্ছে।

এদিকে মাওয়া নৌ-ফাঁড়ির ইনচার্জ সিরাজুল কবীর জানান, সকালের দিকে রো-রো ফেরি বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর, ফেরি ক্যামেলিয়া, কিশোরী ও ফেরি রায়পুরায় কাঁঠালবাড়িঘাট থেকে যাত্রীবোঝাই করে ছেড়ে আসে শিমুলিয়াঘাটে। ফেরিগুলোতে অসংখ্য যাত্রী ছিল।

ফেরি ছাড়াও ট্রলারে করে যাত্রী পারাপার হচ্ছে। তবে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় এসব যাত্রীরা যে যার মতো করে কর্মস্থলে ফিরতে শিমুলিয়া ঘাট থেকে বিকল্প ব্যবস্থায় ঢাকা ফিরছেন।

Sharing is caring!