ছুটি চেয়েছিলাম; বলেছিলাম স্যার, আমা’র স্ত্রী’ আড়াই মাসের অন্তঃসত্ত্বা

আমা’র ভালোবাসা আমাকে ছেড়ে পৃথিবী থেকে চির বিদায় নিয়ে গেল, শুধু একজন পাষাণ এরিয়া ম্যানজারের জন্য। দুদিন আগে ছুটি চেয়েছিলাম। বলেছিলাম স্যার, আমা’র স্ত্রী’ অ’সুস্থ, আড়াই মাসের অন্তঃসত্ত্বা, বেশি বমি করে, বাসায় দেখাশোনা করার মতো মানুষ নেই, আমাকে ছাড়া একা থাকতে পারবে না। কিন্তু আমা’র কথা তোয়াক্কা করে নাই।’নবরতন চাকমা। খাগড়াছড়ির রামগড়ের বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ‘পদক্ষেপ মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্র’র মাঠকর্মী। অফিস থেকে ছুটি না পাওয়ায় তার আড়াই মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী’কে বাঁ’চাতে পারেননি তিনি। অ’সুস্থ অবস্থায় মা’রা গেছেন নবরতন চাকমা’র স্ত্রী’ বিপাশী চাকমা। এ ঘটনায় ওই সংস্থার মানিকছড়ির এরিয়া ম্যানেজার ইকবাল বিন তৈয়বকে দায়ী করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এক আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন নবরতন চাকমা।

Sharing is caring!