হাসপাতালের বিল দিতে না পেরে সন্তান বিক্রি, উদ্ধার করে পুরো টাকা দিল পুলিশ

হাসপাতালের বিল পরিশোধ করতে না পেরে নিজের নবজাতক সন্তানকে মাত্র ২৫ হাজার টাকায় বিক্রি করে দিতে বাধ্য হন মা কেয়া খাতুন। ঘটনাটি ঘটে গাজীপুর শহরের সেন্ট্রাল মেডিকেল হাসপাতালে। শুক্রবার (১ মে) এই খবর পৌঁছে যায় গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আনোয়ার হোসেনের কাছে। তিনি সাথে সাথে ব্যবস্থা নিয়ে নবজাতক শিশুটিকে উদ্ধার করেন এবং হাসপাতালের বিল পরিশোধ করেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গর্ভবতী কেয়া খাতুন গত ২১ এপ্রিল গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কোনাবাড়ি এলাকার সেন্ট্রাল মেডিকেল হাসপাতালে জরুরি বিভাগে ভর্তি হন। ওইদিনই সিজারের মাধ্যমে কেয়া খাতুনের কোল জুড়ে আসে ফুটফুটে ছেলে সন্তান এবং ১১ দিনে হাসপাতালের বিল আসে ৪৭ হাজার টাকা। কিন্তু দারিদ্রের নির্মম পরিহাসে কেয়া খাতুন ও তার স্বামী মো. শরীফ হাসপাতালের বিল দিতে না পারায় অন্যের কাছে নিজের সন্তানকে ২৫ হাজার টাকায় বিক্রি করে দিতে বাধ্য হন। পরে পুলিশ কমিশনার শিশুটিকে উদ্ধার ও বিল পরিশোধের ব্যবস্থা করেন।

Sharing is caring!