২৩ ঘন্টায় ৪ বার ভূ কম্পন, যেকোনো মুহূর্তে বড় ভূমিকম্পের শঙ্কা

সিলেট-চট্টগ্রাম বিভাগসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় রোববার ও সোমবার ১২ ঘণ্টার ব্যবধানে দুইটি ভূমিকম্প অনুভূত হয়। তবে সোমবার (২২ জুন) সকাল এগারোটা পর্যন্ত আরো একাধিক ভূকম্পনের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। এর উৎপত্তিস্থল বাংলাদেশ থেকে বেশ দূরে হওয়ায় দেশে এর অনুভূতি হয়নি। কিন্তু যে কোনো মুহূর্তে বড় ভূমিকম্প হতে পারে বলে শঙ্কা গবেষকদের।সোমবার সকাল ১০.২৭ মিনিটে ও ১০.৫১ মিনিটে আরো দুটি ভূকম্পন রেকর্ড হয়েছে। কিন্তু এগুলো বাংলাদেশের বিপরীত পাশে। যুক্তরাষ্ট্রের কাছাকাছি কোথাও বলছে আবহাওয়া অধিদফতর। যার কোনো প্রভাব বা অনুভূতি বাংলাদেশে হয়নি।আবহাওয়া অধিদফতরের ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ইনচার্জ আবহাওয়াবিদ মমিনুল ইসলাম বলছেন, কয়েকদিন ধরেই এমন নিয়মিত ভূমিকম্প রেকর্ড হচ্ছে। তবে এগুলো বাংলাদেশ থেকে অনেক দূরে। সতর্কতার স্বার্থে আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। তবে এর কোনো প্রভাব বাংলাদেশে আশা করি পড়েনি, পড়ার শঙ্কাও কম।

উল্লেখ্য, গত ২৫ মে ঢাকা থেকে মাত্র ৩৬৬ কিলোমিটার দূরত্বে ভারত সীমান্তে আরো ৫.১ মাত্রার আরো একটি ভূমিকম্প অনুভূত হয়। মাস না পেরোতে আরো মাত্র ১২ ঘণ্টার ব্যবধানে আবারো ভূমিকম্প হলো দুটি। প্রথমটি ছিল, ২১ জুন বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪ টা ৪৬ মিনিটে। রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৫.১ মেগাওয়াট। গভীরতা ছিল ৩৯ কিলোমিটার। দ্বিতীয়টি আজ ২২ জুন সকাল ৪ টা ৪০ মিনিটে ভারত-মায়ানমার সীমান্তে। এর মাত্রা ৫.৮ ও গভীরতা ১০ কিলোমিটার ছিল।

Sharing is caring!