পাপুলের ব্যাংক হিসাব জব্দ, পাওয়া গেল যতো টাকা

মানব পাচারের অভিযোগে কুয়েতে আটক হয়েছেন লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শহীদ ইসলাম পাপুল। দেশটির অপরাধ তদন্ত বিভাগ তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে অপরাধ স্বীকার করে নেন। তার কাছে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সহযোগীদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে কুয়েতের পুলিশ। এর মধ্যেই পাপুলের ব্যাংক হিসাব জব্দ করার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। কুয়েতের বিভিন্ন ব্যাংকে থাকা তার ৫টি অ্যাকাউন্ট জব্দ করে পাওয়া গেছে ১৪০ কোটি টাকা।আরব টাইমসের এক খবরে বলা হয়েছে, কুয়েতের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে হিসাব জব্দ করার এই আবেদন জানিয়েছে সরকারি কৌঁশলীরা। দেশটির পাবলিক প্রসিকিউটর অফিসের বরাতে জানানো হয়, সেখানে পাওয়া গেছে প্রায় ৫০ লাখ কুয়েতি দিনার। বাংলাদেশি টাকার অংকে যা প্রায় ১৪০ কোটি। এই অর্থ যাতে কোথাও পাচার না হয় সেজন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংককে সতর্ক থাকতে বলেছে পাবলিক প্রসিকিউটর অফিস।মানব পাচার, অর্থ পাচার ও ভিসা জালিয়াতির অভিযোগে চলতি মাসের ৭ তারিখে এমপি পাপুলকে কুয়েতে গ্রেপ্তার করা হয়। দেশটির অপরাধ তদন্ত বিভাগের হাতে প্রয়োজনীয় প্রমাণ থাকার পরও প্রথমে পাপুল দোষ স্বীকার করেননি। তারপর তার সামনে ভুক্তভোগীদেরকে হাজির করা হলে তিনি মানব পাচারের কথা স্বীকার করে নেন।রাজনীতির মাঠে না থাকলেও গত নির্বাচনে হঠাৎ করেই লক্ষ্মীপুর-২ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চান পাপুল। সঙ্গত কারণেই তাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। তারপর তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের ঘোষণা দেন। কিছুদিন পর আওয়ামী লীগের প্রার্থী নির্বাচনের মাঠ থেকে সরে দাঁড়িয়ে তাকে সমর্থন জানায়। জানা যায়, বিপুল অংকের অর্থ ঘুষ দিয়ে তিনি প্রতিপক্ষকে নির্বাচন থেকে সরিয়ে দিয়েছিলেন।

Sharing is caring!