সীমান্তে সর্বোচ্চ প্রস্তুতি ভারতীয় সেনার, জানালেন রাজনাথ সিং

নয়াদিল্লি: লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোলে পরিস্থিতি বেশ উত্তপ্ত। শুক্রবার এই বিষয়েই ছিল সর্বদলীয় বৈঠক। আর সেখানে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং আশ্বাস দিয়ে জানান ভারত-চিন সীমান্তে সব রকমের প্রস্তুতি রয়েছে ভারতীয় সেনার।এদিন বৈঠকের শুরুতেই রাজনাথ সিং সব দলের নেতা-নেত্রীদের লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোলের বর্তমান পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করেন। গালওয়ান ভ্যালির সংঘাত সম্পর্কেও এদিন বর্ণনা দেন তিনি। ব্যাখ্যা দেন বিদেশমন্ত্রী জয়শঙ্করও।এদিকে, এদিনের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, চিনের কাছে এক ইঞ্চিও জমি হারায়নি ভারত। কোনও চিনা অনুপ্রবেশ হয়নি বলেও জানিয়েছেন তিনি।এদিন তিনি বলেন, ‘ভারতের ভূখণ্ডে কেউ প্রবেশও করেনি, ভারতের কোনও পোস্টও দখল হয়নি।’ গত কয়েকদিন ধরে অভিযোগ উঠে আসছিল যে গালোয়ান ভ্যালি এবং প্যাংগং লেক সহ ভারতীয় ভূখণ্ডের বেশ কিছু জায়গায় ঘাঁটি গেড়েছে চিন। এদিন কার্যত সেই দাবি উড়িয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী।তিনি আরও বলেন, ‘ভারতের ২০ জন শহিদ হয়েছেন সীমান্তে। কিন্তু তার আগে তাঁরা চিন সেনাকে শিক্ষা দিয়ে গিয়েছেন যে ভারত মায়ের দিকে চোখ তুলে তাকালে কী হতে পারে।’

এদিন তিনি আরও বলেন, ‘অ্যাকশন হোক বা কাউন্টার অ্যাকশন, ভারতীয় সেনা যা রলে ভালো হয়, সেটাই করছে। আমাদের সেই ক্ষমতা আছে যাতে ভারতের এক ইঞ্চি জমির দিকেও কেউ তাকাতে না পারে।১৫ জুন গভীর রাতে ভারত ও চিনের সেনার চরম সংঘাত হয়। সেখানেই শহিদ হন আর্মি অফিসার সহ ২০ জওয়ান। অন্তত ৭৬ জন সেনা আহত অবস্থঅয় হাসপাতালে ভর্তি বলেও জানা গিয়েছে। এই ঘটনার ঠিক পরেই ১৭ ও ১৮ জুন লে ও শ্রীনগরের এয়ারবেস গুলি পরিদর্শন করে আসেন এয়ার ফোর্স চিফ।এদিকে, ত্রিপাক্ষিক বৈঠকে বসছেন দেশের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। জুনের ২৩ তারিখ ভার্চুয়াল কনফারেন্সে বসছে রাশিয়া-ভারত-চিন।বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব নিশ্চিত করেছেন, দেশের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর ত্রিপাক্ষিক বৈঠকে অংশগ্রহণ করবেন। চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ওয়াই এবং রাশিয়ার মন্ত্রী সেরগেই লাভরভ সেই বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন বলেই জানা গিয়েছে। ভারত-চিন সীমান্ত সংঘর্ষের জন্য বৈঠক ঘিরে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়।

Sharing is caring!