আমি আল্লার কাছে দোয়া চাই, বলি লা ইলাহা ইল্লালাহ : মমতা!

ভারতের ক্ষমতাসীন দলের বি’রুদ্ধে প্রবল তোপ দেগে প’শ্চিমবঙ্গের মু’খ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বলেছেন, ধর্মের নামে মানুষের মধ্যে বি’ভেদের রাজনীতির খেলায় নেমেছে বি’জেপি।তিনি বলেন, লোকসভা নির্বাচনের আগে এই ধ’র্মকে ব্যবহার করেই বাংলায় মানুষে মানুষে বিভেদ করতে চাইছে তারা। জাতীয় নাগরিক প’ঞ্জি (এনআরসি)-এর নামে দেশ থেকে মু’সলিমদের তাড়ানোর খেলায় নেমেছে বিজেপি।

মুসলিম অ’ধ্যুষিত এলাকা বে’লডাঙ্গার জ’নসভা থেকে এ’কসময় মমতা বলেন, ‘মোদি বাবু তোমার কিসের ধ’র্ম? এই দেশে রাষ্ট্রপতি হিন্দু, প্র’ধানমন্ত্রীও হিন্দু, সব গু’রুত্বপূর্ণ পদে যারা আছে তারাও হিন্দু। তবে হিন্দু ধ’র্মের রি’পোর্ট পাও কোথা থেকে। তুমি শেখাচ্ছ বলে তাই হচ্ছে? ভাগাভাগি করে দিতে হবে।

এই যে মা’নুষগুলো আ’মার দেশে আছে এরা কি মানুষ নয়। আমার বাং’লায় শতকরা ৩০ শতাংশ মুসলিম ভাই-বোন আছে তারা কি মানুষ নয়? তারা কি থাকবে না? এন’আরসি করে তাদের বাদ দিতে হবে…? এটা কি সহ্য করা যায়? এটা সহ্য করা যায় না।’

মমতা আরও বলেন, ‘আমি যেমন পুজোয় যাই তেমনি রোজায় যাই, ই’ফতার-ঈদেও যাই। কারণ আমার ভাল লাগে। সেখানে গিয়ে আমি আল্লার কাছে দোয়া চাই এবং বলি ‘লা ইলাহা ইল্লালাহ’ আবার বড়দিনে বা গুর’দোয়ারাতেও যাই। এটাই আমাদের সং’স্কৃতি। কিন্তু একটা মোদি বাবু আ’রেকটা অ’মিত শাহ-এই দুই সাইন বো’র্ড এসে আমাদের শিখিয়ে দেবে?
তৃণমূল নেত্রীর অভিযোগ, হি’টলারি ও ফ্যাসিবাদি কায়দায় মো’দিদেশ চালাচ্ছেন। বেলডাঙ্গার পর ওই জেলারই আরেকটি মুসলিম অধ্যুষিত এলাকা ‘ভগবানগোলা’তেও আ’রেকটি জনসভা করেন মমতা। সেখানেও প্রথম থেকে কেন্দ্রের সরকারের বিরুদ্ধে চড়া আ’ক্রমণ করেন মমতা।

Sharing is caring!