গভীর রাতে হঠাৎ ওপরে উঠে এল মাটির নিচের পানির ট্যাংক

পটুয়াখালীর পায়রা সমুদ্র বন্দর আবাসনের পানির ট্যাংক হঠাৎ ওপরে ওঠে এসেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় মানুষের মাঝে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। কেউ বলছেন, কাজের গুণগত মান খারাপ হওয়ায় এমনটি হয়েছে। আবার কেউ কেউ বলছেন, মাটির নিচে অতিরিক্ত গ্যাসের কারণে এমনটি হতে পারে। আবার অনেকের ধারণা অলৌকিকভাবেও এমন ঘটনা ঘটতে পারে। রোববার গভীর রাতে এই ঘটনাটি ঘটলেও এখনো এর কারণ উদঘাটন করতে পারেননি সংশ্লিষ্টরা।

স্থানীয়রা জানান, জেলার কলাপাড়া উপজেলার লালুয়া ইউনিয়নের মেরাউপাড়ায় তৃতীয় ভূমি অধিগ্রহণে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের জন্য এখানে একাধিক আবাসন নির্মাণ করা হচ্ছে। ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মেরাউপাড়ায় তিনটি আবাসনের কাজ চলছে এবং তিনটি আবাসনের কাজই ডকইয়ার্ড অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কস লিমিটেডের মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছে। এর মধ্যে ১ নম্বর আবাসনে ১৪৪ পরিবারের পানি সরবরাহের জন্য ৩০ ফুট দৈর্ঘ্য, ২০ ফুট প্রস্থ ও ১০ ফুট গভীরতার দেড় লাখ লিটার পানি ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন একটি ট্যাংক তৈরি করা হয়েছে। ট্যাংকটি কংক্রিট দিয়ে তৈরি করা হয়। কিন্তু রোববার গভীর রাতে এর চারপাশে জমে থাকা বৃষ্টির পানিতে বুদ বুদের সৃষ্টি হয়ে ট্যাংকটি হঠাৎ ওপরে উঠে আসে।

ওই আবাসনের শ্রমিক মো. সোহাগ ফরাজী বলেন, ‘রাত দেড়টার দিকে ট্যাংকের চারপাশে জমে থাকা পানিতে বুদ বুদ শব্দ হয়। কাছে গিয়ে দেখি হঠাৎ করে ট্যাংকটি ওপরে উঠে এসেছে। কি কারণে হয়েছে বুঝতে পারছি না। মাটির নিচে জমে থাকা গ্যাসের কারণেও হতে পারে।’

আবাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত সার্ভেয়ার মো. শামীম জানান, হঠাৎ করে পানির ট্যাংকটি ওপরে উঠে আসায় সবাই উদ্বিগ্ন। কি কারণে এ ঘটনা ঘটেছে তা সঠিক তদন্ত ছাড়া বলা যাচ্ছে না।

ডকইয়ার্ড অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কস কোম্পানির প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. ওয়ালিউল্লাহ জানান, হঠাৎ করে পানির ট্যাংক ওপরে ওঠে আসার কারণ এখন উদঘাটন করা যায়নি, তবে চেষ্টা চালছে। বিষয়টি পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষকেও অবহিত করা হয়েছে।

Sharing is caring!