শিগগিরই দেশে ফিরবেন প্রায় ২৯ হাজার প্রবাসী

আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ২৮ হাজার ৮৪৯ প্রবাসী বাংলাদেশি দেশে ফিরবেন। তাদের বেশির ভাগই মধ্যপ্রাচ্য থেকে ফিরে আসছেন।

বুধবার (০৬ মে) প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীদের দেশে ফেরানো নিয়ে পঞ্চম আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে এক ভিডিও বার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘তাদের কীভাবে ফিরিয়ে আনব তা নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি। আমরা তাদের ফিরিয়ে আনতে পারব।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন জানান, আগামী কয়েক সপ্তাহে ২৮ হাজার ৮৪৯ জন প্রবাসী নাগরিক দেশে ফিরবেন। এছাড়া মধ্যপ্রাচ্য থেকে অনেকেই দেশে ফিরছেন। গত সপ্তাহে মধ্যপ্রাচ্য থেকে তিন হাজার ৬৯৫ জন বাংলাদেশি নাগরিক ফিরেছেন।

‘মধ্যপ্রাচ্যে যারা জেলে ছিলেন তাদের সেখানে মাফ করে দেওয়া হয়েছে। কুয়েত সরকার অনিবন্ধিত শ্রমিকদের ক্ষমা করে দিয়েছেন। সেখানে প্রায় সাড়ে চার হাজার বাংলাদেশি অনিবন্ধিত রয়েছেন। আমরা তাদের ফেরত নিয়ে আসবো।’

মন্ত্রী বলেন, মালদ্বীপে প্রবাসীদের অসুবিধা যেন না হয়, সেখানে আমরা খাবার পাঠিয়েছি। আগামীকাল সেখান থেকে ৪শ বাংলাদেশি দেশে ফিরবেন।

‘কুয়েত থেকে বাংলাদেশিরা ফিরবেন। ওমান থেকে ফিরবেন। সৌদি আরব থেকে চার হাজার বাংলাদেশি ফিরবেন। ইরাকে অনেক লোকের চাকরি চলে গেছে। আমরা সেটা দেখছি।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সৌদি আরব বলেছে চার হাজার ২০০ জনের মতো ফেরাতে পারে। জর্ডান, ওমান, লেবানন থেকেও ফেরত আসার সম্ভাবনা আছে। লেবাননে তারা ঝামেলায় আছেন। তাদের আইওএম এর মাধ্যমে ফেরানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। কাতার ও ইরাক থেকেও ফিরছে। ইরাকে বড়সংখ্যক প্রবাসীর চাকরি চলে গেছে। তাদেরও ফেরত আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।’

করোনার আগে বিভিন্ন দেশে আটকা পড়াদের প্রসঙ্গ টেনে মন্ত্রী বলেন, ‘বিদেশে গিয়ে যে বাংলাদেশিরা আটকে গেছে, যেমন ভারত, চীন, জাপান, সিঙ্গাপুর তাদেরও দুই হাজার ৮৫৩ জনকে ফেরত এনেছি। আরও কিছু আনার জন্য ভাড়া করা ফ্লাইটের ব্যবস্থা করছি। যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র থেকেও ফেরানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’

বৈঠকে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমেদ, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলমসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Sharing is caring!