অবশেষে বের হল চাঞ্চল্যকর তথ্য যে কারণে আ’ত্মহ’ত্যার করেছিলেন সুশান্ত রাজপুত

বলিউডের সুশান্ত সিং রাজপুত অচল হয়ে পড়েছিলেন কারণ তিনি মেনে নিতে পারেননি যে জীবন চলার পথটি মসৃণ নয়। বলিউডে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন তিনি। বেশ কয়েকটি ছবি ছিল ব্লকবাস্টার হিট।
তিনি অ’ভিনেতা হিসাবে জনপ্রিয় হয়েছিলেন। নতুনদের ভিড়ের সাথে নিজেকে আলাদাভাবে পরিচয় করিয়েছিলেন সুশান্ত।তবে এবার নিজের কাছে হেরেছিলেন সুশান্ত। তিনি ৩৪ বছর বয়সে তাঁর মুম্বাইয়ের ফ্ল্যাটে মা’রা যান। পু’লিশের প্রাথমিক অনুমান যে তিনি আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন।

তিনি ছিলেন একজন চিন্তাবিদ। সুশান্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ভাবনা লিখতেন। কখনও তিনি বিজ্ঞান কথাসাহিত্য স’ম্পর্কে লিখতেন, কখনও কখনও তাঁর পোস্ট মহাজাগতিক বিষয়ে দেখা হত।
তিনি এই বিষয়গু’লি স’ম্পর্কে গভীরভাবে চিন্তা করেছিলেন। তাঁর সর্বশেষ ইনস্টাগ্রাম পোস্টটি দেখে মনে হয় তিনি কোথাও সেই গভীর চিন্তার ছাপ রেখে গেছেন। এতে জীবনের দ্বন্দ্ব উঠে এসেছে।

সুশান্ত ২০০২ সালে তার মাকে হারিয়েছিলেন। সে দুঃখটি তিনি একেবারেই ভুলতে পারেননি, অ’ভিনেতাও শেষ পোস্টে সেই মাকে নিয়ে কথা বলেছেন।সুশান্ত সর্বশেষ ইনস্টাগ্রাম পোস্টে লিখেছিলেন, “অ’তীতের চোখের জল ফিকে হয়ে গেছে, হাসি ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে আছে, এবং মনে হয় জীবন এই ভবিষ্যতে এবং অ’তীতে প্রবাহিত হচ্ছে … মা”।

জানা গেছে যে এই অ’ভিনেতা হতাশার জন্য চিকিৎসাধীন ছিলেন। মৃ’ত্যুর পরে পু’লিশ সুশান্তের ফ্ল্যাটে গিয়ে মেডিকেল পেপারগু’লি উ’দ্ধার করে। তারপরে তারা অনুমান করেছিলেন, হতাশায় অ’ভিনেতা আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন।সুশান্ত সিং রাজপুত ১৯৮৬ সালের ২১ জানুয়ারি পাটনায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন। পরে তাঁর পরিবার দিল্লিতে চলে আসে। তিনি দিল্লি কলেজ অফ ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তি হন। তবে তার পর থেকে তিনি থিয়েটারের দিকে ঝুঁকছেন। তিনি নাচ শিখেন। পড়াশোনা শেষ করতে পারেননি তিনি।

Sharing is caring!