হীরা বা স্বর্ণ নয়, পৃথিবীর সবচেয়ে দামি তরল সম্পর্কে জানুন

মানুষের প্রচলিত বিশ্বাস অনুযায়ী বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান বস্তু হলো সোনা। কিন্তু বাস্তবতা হলো সোনার চেয়েও মূল্যবান অনেক বস্তু রয়েছে পৃথিবীর বুকে। আবার অধিকাংশ মানুষই মূল্যবান বস্তু হিসেবে হীরা কিংবা ইউরেনিয়ামকে সবার ওপরে রাখবে। এসব মূল্যবান তরলের বেশিরভাগই ক্ষেত্র বিশেষ মানুষের জীবন রক্ষায় ভূমিকা রাখে। পৃথিবীর সর্বাধিক মূল্যবান কয়েকটি তরল সম্পর্কেই এই লেখা।

বিচ্ছুর বিষ

বিচ্ছু অনেকটা কাঁকড়ার মতো দেখতে, এ কারণে কাঁকড়াবিচ্ছু বা কাঁকড়াবিছে নামেও পরিচিত। বিচ্ছু দেখলে মানুষ স্বাভাবিকভাবেই ভয় পায়। বিচ্ছুও যথাসম্ভব মানুষের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলার চেষ্টা করে। বিশ্বে মাত্র ২৫ প্রজাতির কাঁকড়াবিছের বিষে মানুষের মৃত্যু হতে পারে। তবে জানেন কি? এদের বিষ ব্যথানাশক হিসেবে ব্যবহার করা হয়। বাতজনিত আর্থ্রাইটিসের চিকিৎসায় বিচ্ছুর বিষ ব্যবহার করা হয়। প্রতি গ্যলোনের মূল্য প্রায় ৩৯ লাখ মার্কিন ডলার।

কিং কোবরার বিষ

কিং কোবরা বিশ্বের সবচেয়ে বিষধর সাপ। এর কামড়ে মুহূর্তেই মানুষের মৃত্যু হতে পারে। কিং কোবরার বিষে ওহোনিন নামক একটি দুর্লভ প্রোটিন থাকে। যা ব্যথানাশক হিসেবে ব্যবহার করা হয়। অন্যান্য ওষুধ থেকে এই ব্যথানাশক ২০ গুণ বেশি কার্যকর। প্রতি গ্যালোন কিং কোবরার বিষের মূল্য প্রায় দেড় লাখ মার্কিন ডলার।

এলএসডি

এলএসডি একটি ভয়ঙ্কর মাদকের নাম। বিশ্বব্যাপী অধিকাংশ দেশেই এটা নিষিদ্ধ। তরল এবং কঠিন দুই অবস্থায়ই পাওয়া যেত এটা। ১৯৭০ এর দশক থেকেই এলএসডি নিষিদ্ধ। এই ভয়াবহ মাদকের মাত্র এক গ্যালনেই ৫৫ হাজার মানুষ নেশাগ্রস্ত করার জন্য যথেষ্ট। এর মূল্যও অনেক বেশি। এক গ্যালন এলএসডির দাম প্রায় এক লাখ ২৩ হাজার মার্কিন ডলার।

হর্স সু ক্র্যাব ব্লাড

হর্স সু ক্র্যাব মূলত এক প্রকার কাঁকড়া। ঘোড়ার খুরের মতো দেখতে হওয়ায় এদের হর্স সু ক্র্যাব বলা হয়। এরা জীবন্ত জীবাশ্ম। হর্স সু ক্র্যাব আনুমানিক ৪৫০ মিলিয়ন বছর ধরে পৃথিবীতে নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রেখেছে। এদের রক্ত নীল রঙের হয়ে থাকে। এই রক্ত দিয়ে ওষুধ ও প্রতিষেধক তৈরি করা হয়। হর্স সু ক্র্যাবের রক্তও অনেক মূল্যবান। যার প্রতি গ্যালনের মূল্য ৬০ হাজার মার্কিন ডলার।

চ্যানেল ৫

চ্যানেল ৫ পৃথিবীর সবচেয়ে দামি সুগন্ধির অন্যতম। কেমিস্ট আরনেস্ট বক্স এবং কোকো চ্যানেল যৌথ উদ্যোগে ১৯২২ সালে এই সুগন্ধিটি তৈরি করেন। ৫ সংখ্যাটি নির্মাতা নিজের সৌভাগ্যের সংখ্যা মনে করতেন। সে কারণেই সুগন্ধিটির নাম দেন চ্যানেল ৫। এটি পৃথিবীর অন্যতম মূল্যবান তরল। প্রতি গ্যালনের মূল্য ২৬ হাজার মার্কিন ডলার।

ইনসুলিন

ডায়াবেটিস রোগীদের চিকিৎসায় বিশ্বব্যাপী ইনসুলিন ব্যবহৃত হয়। এটা পৃথিবীর অন্যতম দামি তরল। প্রতি গ্যালন ইনসুলিনের মূল্য প্রায় নয় হাজার ৪০০ ডলার। এগুলো ছাড়াও পারদ, মানুষের রক্ত, বিশেষ ধরনের ব্ল্যাক প্রিন্টার ইঙ্ক, পেনিসিলিন পৃথিবীর অন্যতম মূল্যবান তরল পদার্থ।

Sharing is caring!